নামাজের সময়সূচি pdf বই ডাউনলোড

নামাজের সময়সূচি

204
নামাজের সময়সূচি pdf বই
নামাজের সময়সূচি

নামাজের সময়সূচি pdf বই

এটি একটি ক্ষুদ্র বই। এই বইটিতে নিম্নোক্ত বিষয় সমূহে নামাযের সময় সূচী সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে।

  • নামাজের সময়সূচীর বর্ণনা

আল্লাহ আ’আলা ইরশাদ করেন, “আমি তোমার নিকট এ কুরআন এ জন্য নাযিল করেছি, যাতে তুমি লোকদের নিকট বর্ণনা কর, যে বিষয়ে তারা মতবিরোধ করেছে এবং বিশ্বাসী সম্প্রদায়ের জন্য ইহা হেদায়াত ও রহমত স্বরূপ।” [১৬ঃ৬৪]

তিনি আরও বলেন, “আমি তোমার নিকট কিতাব নাযিল করেছি, যা সমুদয় বিষয়ের বর্ণনাকারী এবং সেটা হেদায়াত, রহমত ও মুসলমানদের জন্য সুসংবাদ স্বরূপ।” [১৬ঃ৮৯]

আরও বই পড়ুন – নামাজের ফজিলতে সুসংবাদ

সুতরাং বান্দারা তাদের দ্বীন ও দুনিয়ার ব্যাপারে যে সকল বিষয়ে জ্ঞান লাভের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করবে, আল্লাহ তা’আলা ঐ সমুদয় বিষয় তাঁর কিতাবে অথবা নবী (সাঃ) এর হাদীসে সবিস্তারে বর্ণনা করে দিয়েছেন।

নামাজের সময়সূচি

হাদীস হচ্ছে কুরআনের ভাষ্য ও ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ মাত্র। সাধারণভাবে বর্ণিত বিষয়কে খাসভাবে চিহ্নিত করেছে এবং ব্যাপকভাবে বর্ণিত বিষয়গুলোকে হাদীস সীমিতভাবে চিহ্নিত করে দেয়। বস্তুত কুরআনের একটি আয়াত অন্যটির জন্য বর্ণনা ও ব্যাখ্যা স্বরূপ এবং স্থানে স্থানে সংক্ষিপ্তকে বিস্তৃত, ব্যাপককে সীমিত, সাধারণভাবে বর্ণিত বিষয়কে বিশেষ ধারায় বর্ণনা করা হয়েছে।

এ প্রেক্ষাপটেই নবী করীম (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এরশাদ করেন, জেনে রাখ! আমাকে কুরআন এবং তার অনুরূপ একটি বিষয় প্রদান করা হয়েছে। (আহমদ, আবু দাউদ) এর সনদ সহীহ।

উল্লেখিত কানুনের পরিপ্রেক্ষিতে পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের সময়সূচীর বর্ণনা অন্যতম, যে নামাযগুলো শারীরিক আমলের মধ্যে ফরয হিসেবে করা হয়েছে এবং মহামহীম আল্লাহ তা’আলার নিকট অতীব প্রিয়। আল্লাহ তাঁর মহাগ্রন্থ আল-কুরআনেও তাঁর রাসূল (সাঃ) িএর হাদীসে সময় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন।

নামাজের সময়সূচি

আল্লাহ তা’আলা ইরশাদ করেন, “নামায কায়েম কর, সূর্য পশ্চিমে ঢলে পড়ার সময় থেকে রাত্রির অন্ধকার আচ্ছন্ন হওয়ার সময় পর্যন্ত, আর ফজরে কুরআন পাঠের সময় ফেরেস্তা উপস্থিত থাকে।” [১৭ঃ৭৮]

এতে আল্লাহ পাক তাঁর নবী (সাঃ) কে আদেশ করেছেন, আর এ আদেশের অর্থ হলো তাঁর সাথে, তাঁর উম্মতের উপর এ নির্দেশ। সূর্য ঢলে পড়লে নামায আদায় করা, অর্থাৎ মধ্যাকাশ থেকে সূর্য ঢলে পড়ার সময় থেকে রাত্রির নিবিড় অন্ধকার আচ্ছন্ন হওয়ার সময় পর্যন্ত, আর এ অন্ধকার অর্ধরাত্রিতে হয়ে থাকে।

আরও বই পড়ুন – নামাজ পড়ার পদ্ধতি

অতঃপর পৃথকভাবে বর্ণনা করে বলেনঃ “আর ফজরে কুরআন পাঠ কর” – এর অর্থ হলো ফজরের নামায। আর ফজরের নমাযকে কুরআন দ্বারা ব্যাখ্যার কারণ হলে এতে কুরআনের পাঠ দীর্ঘায়িত করা হয়।

“সূর্য পশ্চিমে ঢলে পড়ার সময় হতে রাত্রির অন্ধকার আচ্ছন্ন হওয়ার সময় পর্যন্ত” আল্লাহ এ পবিত্র বাণীতে চার ওয়াক্ত নামাযের সময়সূচী বর্ণনা করেছেন। সেগুলো হচ্ছে যোহর ও আসরের সালাত, আর উভয় সালাতই দিবসের শেষার্দের নামায এবং মাগরিব ও ইশার সালাত, যা রাতের প্রথমার্ধের নামায।

নামাজের সময়সূচি pdf বই

পক্ষান্তরে “ফজরের সময় কুরআন পাঠ” এ পবিত্র কলাম দ্বারা ফজরের সময় পৃথকভাবে বর্ণনা করা হয়েছে। “আল ফজর” শব্দটির দ্বারা নির্ধারিত সময়ের কথা বলা হয়েছে। আর সেটি হল পূর্বাকাশে সূর্যের আলোকচ্ছটা প্রকাশিত হওয়ার সময়।

বস্তুত আল্লাহ তা’আলা চারটি সময় একত্রিত করেছেন, কেননা সময়গুলো একটি অপরটির সাথে ওতোপ্রতভাবে জড়িত। একটি নামাযের সময় শেষ হতে না হতেই অপরটি উপস্থিত হয়। আর ফজরের সময়টি পৃথকভাবে এজন্য বর্ণিত হয়েছে যে, তার সাথে আগে-পিছের সময়ের কোন সম্পর্ক নেই। কেননা, ইশার ও ফজরের নামাযের মধ্যে প্রতিবন্ধক হচ্ছে দিনের মধ্যভাগ, যেমন তা হাদীসের আলোকে বর্ণিত হবে ইনশ আল্লাহ।

নামাজের সময়সূচি

পক্ষান্তরে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে সহীহ মুসলিমে আব্দুল্লাহ ইবন আমর ইবনুল আস (রাঃ) বর্ণনা করেন- নবী করীম সা. ইরশাদ করেছেন “যোহর নামাযের ওয়াক্ত তখন শুরু হয় যখন সূর্য ঢলে পড়ে, আর প্রত্যেক মানুষের ছায়া তার সমান দীর্ঘ হওয়া পর্যন্ত আসরের ওয়াক্ত উপস্থিত হয় না।

আরও বই পড়ুন – নামাজের দোয়া ও জিকির

আর আসরের নামাযের সময় সূর্য হলুদ বর্ণ না হওয়া পর্যন্ত, আর মাগরিবের সময় সূর্য অস্ত যাওয়া থেকে তার লালিমা বাকি থাকা পর্যন্ত এবং ইশার নামাযের সময় থাকে মধ্যরাত পর্যন্ত। আর ফজরের ওয়াক্ত সুবহে সাদিক থেকে সূর্যোদয় না হওয়া পর্যন্ত। অন্য বর্ণনায় আছে ইশার নামাযের সময় অর্ধরাত্রি পর্যন্ত।”

বইয়ের ধরণঃ সালাত বিষয়ক
প্রকাশ সালঃ 
বইয়ের লেখকঃ আশশায়েখ মোহাম্মদ বিন সালেহ আল ওসাইমীন
অনুবাদঃ 
প্রকাশকঃ 
বইয়ের সাইজঃ 537 KB
নামাজের সময়সূচি


DOWNLOAD NOW


ভিডিউ টিউটোরিয়াল পেতে আমাদের চ্যনেলটি সাবস্ক্রাইব করুন।

Online Academy BD